Published: 04 নভে 2021

ভিন্ন ভিন্ন অনুষ্ঠানে নতুন পন্থায় সোনার গহনা পরা

মহামারী আমাদের জীবনধারার কাজকর্ম ও পছন্দগুলিতে ব্যাপক পরিবর্তন ঘটিয়েছে। গহনাপত্র, বিশেষ করে সোনার বেলাতেও এর ব্যতিক্রম ঘটেনি। মহামারীর সময় এমনকি অন্যান্য জিনিসের দাম কমলেও সোনার দাম বেড়েই চলছে। এই ঘটনাটি তাৎপর্যপূর্ণ, বিশেষ করে মিলেনিয়েল ব্যক্তির জন্য, সোনাতে বিনিয়োগের সম্ভাবনার বিষয়ে। 

দেশজুড়ে পরিস্থিতি স্থিতিশীল হওয়ার সাথে সাথে, লোকেরা ধীরে ধীরে অফিসে ফিরে যাওয়া, খাওয়া দাওয়া, বিয়ে এবং অন্যান্য অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে মহামারী-পূর্ব জীবনযাপনে ফিরে আসছে। তবে, এখনও সতর্ক থাকার আবহটি রয়ে গেছে, যে কারণে বেশিরভাগ মানুষ যারা স্বর্ণালংকার কিনতে পছন্দ করছেন তারা এমনসব জিনিস খুঁজছেন যা বহুমুখী এবং দৈনন্দিন ও উৎসব-অনুষ্ঠান উভয় ক্ষেত্রে পরিধানের উপযোগী।

এই বিষয়গুলি মাথায় রেখে, আসুন এমন কিছু উদ্ভাবনী উপায় জেনে নেওয়া যাক যার মাধ্যমে আপনি স্টাইলের ক্ষেত্রে শীর্ষভাগে থাকার জন্য সোনার গহনা পরতে পারেন:

1. ছোট পারিবারিক সমাবেশ/ ঘনিষ্ঠজনদের উৎসব

gold jewels

বিয়ে-শাদীর মতো প্রথাগত অনুষ্ঠানের জন্য, ঐতিহ্যবাহী সাজগোজ সবসময় কদর পায়। একটি সোনার চোকার নেকলেসের সাথে একটি ব্রেসলেট চমৎকার সাজ হতে পারে। সাধারণত কানের দুল মিলিয়ে পরার নিয়ম থাকলেও, বড়, মোটা কানের দুল আপনার মাস্কের সাথে জড়িয়ে যেতে পারে। সুতরাং, কানের চেয়ে আপনার ঘাড় ও কব্জিতে গয়না পরিধান করাই বুদ্ধিমানের কাজ (এবং নিরাপদ)। 

মেহেন্দির মতো প্রাণবন্ত উৎসবের জন্য, একটি ঝকমকে নবরত্ন সোনার সেট একটি লাস্যময় কিন্তু উৎসবমুখর পোশাকের সাজের আয়োজন করতে পারে। ককটেল, বার্ষিকী এবং ঐতিহ্যবাহী নয় এমন অন্যান্য ইভেন্টগুলোর জন্য, রোজ গোল্ড অধিক আধুনিক, পরিপাটি সাজ এনে দিতে পারে। যেমন, একটি নকশা করা রোজ গোল্ড প্যান্ডেন্ট ও কানের দুল আপনার পোশাকের সাথে সত্যিই মানানসই হয়ে উঠবে, বিশেষ করে যদি আপনি একটি গভীর, গাঢ় রঙের পোশাক পরেন।

2. বাড়ি থেকে কাজ করার সময় ভিডিও কলে যোগ দেওয়া

কর্মক্ষেত্রগুলো খোলা শুরু হলেও, অনেক কর্মীই এখনো বাড়িতে থেকে কাজ করছেন, এবং এর অর্থ হল ভিডিও কলের মাধ্যমে মিটিং ও প্রেজেন্টেশনে অংশ নেওয়া। এই কলগুলোর জন্য পেশাদারিভাবে সাজসজ্জা করা জরুরি কেবল পেশাদার চেহারা বজায় রাখার জন্যই নয়, বরং এটি আপনার প্রাণশক্তির মাত্রায়ও পার্থক্য আনতে পারে। এবং নিজের সম্পর্কে আপনাকে উত্তম বোধ করাতে সঠিক পোশাক ও গয়নার চেয়ে উত্তম কিছুই হতে পারে না।

যখন আপনি গয়না বাছবেন, তখন নিশ্চিত হয়ে নিন যে প্রফেশনাল দেখাতে আপনি নেকলেস এবং ছোট কানের দুল বেছে নিয়েছেন। প্রফেশনাল, মার্জিত চেহারার জন্য আপনার শুধু চাই ছোট ছোট হীরা বসানো বৃত্তাকার এক জোড়া সোনার কানের দুল। এছাড়া এক কানে একটি সোনার ইয়ার কাফ পেশাদারি ভাব অক্ষুণ্ন রেখেই আপনার সাজকে আরও উন্নত করতে পারে। যদিও ব্রেসলেট এড়িয়ে যাওয়া ভাল, কারণ টাইপ করার সময় এগুলো আপনার জন্য বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে।

3. চট করে কফি খেতে যাওয়া

স্বাভাবিকতা প্রায় ফিরে এসেছে, এবং অনেক মানুষই জীবনের সহজ আনন্দ উপভোগ করার জন্য বাইরে যাওয়া শুরু করেছে - যেমন সাধারণ কফি খেতে বন্ধুদের সাথে দেখা করা। কিন্তু নিরাপদে থাকতে গিয়ে স্টাইলিশ না হওয়ার কোনও কারণ নেই। যখন আপনি আপনার মাস্কটি পরবেন, তখন আপনার সাদামাটা টি-শার্ট ও জিন্সের সাথে সামান্য ঝলক আনতে একজোড়া সোনার স্টাড বা হুপসও পরে নিন না। 

আপনি একটি সাধারণ সোনার ব্রেসলেট বা পেন্ডেন্ট সহ একটি পাতলা চেইনও পরতে পারেন। গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল শুধু একটি গয়না পরা। কখনও কখনও অল্পই যথেষ্ট - এবং আপনি শুধু একটি গয়না পরলে সেটি আরও বেশি নজর কাড়বে।

4. বাড়িতে থাকার সময়

যদিও নিজের জন্য সাজগোজ করা জরুরী, ঘরে পরার জন্য পোশাক ও গয়না বেছে নেওয়ার সময় আরামও একটি প্রধান বিষয়। আপনি সোফায় শুয়ে থাকুন কিংবা ব্যানানা ব্রেড বানান, পরিধানের জন্য সাধারণ গহনাই সবচেয়ে ভালো।

স্টাইলিশ চেহারার জন্য সামান্য এনামেলের নকশাসহ একটি সাধারণ, পাতলা সোনার চেইন বা ছোট ফুলের কানের দুল বেছে নিতে পারেন - যেমন পারিবারিক ভিডিও কলগুলোর জন্য। লম্বা কানের দুল বা ব্রেসলেট এড়ানোই বোধহয় বুদ্ধিমানের কাজ, কারণ আপনি কাজ করার সময় এগুলো কিছুতে জড়িয়ে যেতে পারে।

5. সোশ্যাল মিডিয়ায় পোজ দেওয়া

Woman wearing gold jewellery

Jewellery credits: Chheda Jewels – Only at Dadar T.T. Circle

Woman wearing gold jewellery

Jewellery credits: Curated by the Brand Poonam Soni 

বেশিরভাগ লোক তাদের বাড়িতে আটকে থাকায়, আপনি আপনার সোশ্যাল মিডিয়া ফিডে খুব বেশি ভ্রমণ পোস্ট দেখতে পাবেন না। অনন্য কিছু পোস্ট করার জন্য এর চেয়ে ভাল সময় আর কি হতে পারে - যেমন কিছু অনন্য, অত্যাশ্চর্য গয়নার সাজ?

চোখ ধাঁধাঁনো সাজ তৈরি করতে, অনন্য ও সাহসী ডিজাইনের গয়নাগুলো বেছে নিন, যা ছবিতে ফুটে উঠবে। যেমন, আপনি যদি দৈনন্দিন জীবনে বড় রত্ন পাথর বসানো একটি বড় আংটি পরতে দ্বিধা করেন, তবে এটিই তা প্রদর্শন করার উপযুক্ত সুযোগ হতে পারে।

আপনি যদি আপনার স্টেটমেন্ট কানের দুল ভালবাসেন, তাহলে সূক্ষ্ম কারুকাজের ডিজাইন পরার চেষ্টা করুন অথবা ঐতিহ্যবাহী ও আধুনিক ধাঁচ একসাথে মিলিয়ে-মিশিয়ে পরুন। যেমন, লালের মত উজ্জ্বল রঙে একটি থ্রি-পিস স্যুট পরে দেখুন, এবং দারুণ ফিউশন লুকের জন্য এর সাথে সোনার ঝুমকা বা কুন্দন পাথর বসানো চাঁদবালি যোগ করুন।

মনে রাখবেন, বাড়ি থেকে কাজ হোক বা পার্টি হোক, আপনার পোশাক সাদামাটা বা জলো হয়ে যাওয়ার কোনও কারণ নেই। বিভিন্ন সাজ নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করুন; সহজ সোনার চেইন দিয়ে শুরু করুন এবং নিজেকে সাজাতে এবং আপনার পছন্দ মতো নিখুঁত চেহারা পেতে আপনার কল্পনাশক্তি ব্যবহার করুন।